প্রথম পাতা » Featured » ডা. মুক্তাদুর বললেন, পুলিশ জানলে অযথা টাকা পয়সা যাবে

ডা. মুক্তাদুর বললেন, পুলিশ জানলে অযথা টাকা পয়সা যাবে

ডা. মুক্তাদুর বললেন, পুলিশ জানলে অযথা টাকা পয়সা যাবে

মাগুরা প্রতিদিন ডট কম : হাসপাতালের ভর্তি রেজিস্টারে রোগির নামের পাশে “পুলিশ কেস” হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। অপারেশন টেবিলে রোগির মৃত্যুর ঘটনাও ঘটলো। অথচ বিষয়টি পুলিশকে না জানিয়েই হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার মুক্তাদুর রহমান লাশের ছাড়পত্র দিয়ে দিলেন। যে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে একটি বড় রকমের প্রশ্নবোধক চিহ্ন হিসেবে দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, ৩৫ বছর বয়সি চন্দ্রকান্ত বিশ্বাস পেশায় একজন নসিমন চালক। মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার চিলগাড়ি গ্রামের ফনিভূষণ বিশ্বাসের ছেলে। ১৯ এপ্রিল রাতে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত হয়ে মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। ভর্তির সময়ই হাসপাতালের জরুরি বিভাগ থেকে বিষয়টিকে পুলিশ কেস হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। পাশাপাশি চলে নানারকম ঔষধপত্র চললেও শরীরে অস্ত্রপচারের জন্য অপারেশন থিয়েটারে নেওয়া হয় পরদিন দুপুর সাড়ে তিনটায়। ২০ এপ্রিল বৃহস্পতিবার বিকালে অপারেশন টেবিলেই চন্দ্রকান্ত তার শেষ নিশ্বাসটি ফেললেন।

খবর নিয়ে জানা যায়, দরিদ্র পরিবারের সন্তান চন্দ্রকান্ত। মৃত্যুর পর বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ছোট দুটি ভাই লাশ নিয়ে যায় বাড়িতে সত্কার করার জন্য। এ ঘটনার আরো আধাঘন্টা পর হাসপাতালের দায়িত্বরত দু’জন নার্স লাশের খোজ নিতে গিয়ে দেখলেন নেই। বেশ আগেই পরিবারের সদস্যরা লাশ নিয়ে রওনা দিয়েছেন।

মাগুরা সদর হাসপাতালের সার্জারি কনসালট্যান্ট সফিউর রহমান জানান, রোগির খাদ্যনালি ছিড়ে যাওয়ায় তার অবস্থা খুবই শঙ্কটাপন্ন ছিল। অপারেশন শুরুর আগেই তার মৃত্যু হয়। অপারেশনের আগে পরিবারের কয়েকজন সদস্যের বণ্ড নেওয়া হয়েছে বলেও তিনি উল্লেখ করলেন। তবে পুলিশকে গোপন করে লাশ হস্তান্তরের বিষয়ে তিনি কিছু জানাতে পারেন নি।

এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে মাগুরা ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সুশান্ত কুমার বিশ্বাসের সাথে অনেকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও পাওয়া যায়নি।

তবে হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মুক্তাদুর রহমান বলেন, রোগীর পরিবারের আর্থিক অবস্থা খুব ভাল নয়। পুলিশকে জানালে আবার টানা হেচড়া হবে। অযথা পুলিশকে টাকা পয়সা দিতে হবে। যে কারণেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo_image
সম্পাদক: জাহিদ রহমান
নির্বাহী সম্পাদক: আবু বাসার আখন্দ
প্রকাশক:: জাহিদুল আলম
যোগাযোগ:
পৌর সুপার মার্কেট ( দ্বিতীয় তলা), এমআর রোড, মাগুরা।
ফোন: ০১৯২১১৬১৬৮৭, ০১৭১৬২৩২৯৬২
ইমেইল: maguraprotidin@gmail.com