প্রথম পাতা » Featured » শিক্ষক রুহুল আমিন হত্যা মামলার জট খুলে গেলো

শিক্ষক রুহুল আমিন হত্যা মামলার জট খুলে গেলো

শিক্ষক রুহুল আমিন হত্যা মামলার জট খুলে গেলো

মাগুরা প্রতিদিন ডেস্ক : মাগুরার চাঞ্চল্যকর রুহুল আমিন মাস্টার হত্যা মামলার জট খুলে গেলো। পুলিশ হত্যা মামলার ছয় ঘন্টার মধ্যে খুনি মাসুদ রানাকে গ্রেফতার করেছে। রবিবার সে হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে মাগুরার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দী দিয়েছে।

গত বুধবার সকালে সদর থানা পুলিশ মাগুরা-ঝিনাইদহ হাইওয়ে সড়কের মাগুরা পুলিশ লাইন সাজিয়াড়া এলাকার বাসিন্দা সদরের গৌরিচরণপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষখ রুহুল আমিন(৬৫)-এর মৃতদেহ উদ্ধার করে। সড়ক দূর্ঘটনায় তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছিল। কিন্তু নিহতের পরিবারের সদস্যরা জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে স্থানীয় প্রতিপ¶রা রুহুল আমিনকে হত্যা করতে পারে বলে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। যার প্রে¶িতে নিহতের স্ত্রী রেহানা বেগম শনিবার ১৩ জনের নামে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকতর্তা মাগুরা সদর থানার এসআই তরিকুল ইসলাম জানান, এজাহারভুক্ত আসামীদের ব্যক্তিগত চালচলন, জীবনযাপন, মেলামেশা পর্যবেক্ষণ ও তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে মামলার ৮ নং আসামী পৌরসভার সাবেক কমিশনার গোলাম সরোয়ারের পুত্র মাছুদ রানাকে সম্ভব্য খুনি হিসেবে টার্গেট করে শনিবার দুপরে শহরের স্টেডিয়াম এলাকা থেকে আটক করা হয়। এ ঘটনার পর পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে মাছুদ এ হত্যাকাণ্ডের দায় স্বীকার করে।

হত্যাকারি মাসুদ জানায়, পারিবারিক জমিজমা নিয়ে বিরোধের জের ধরে শিক্ষক রুহুল আমিন পূর্বে তাকে মামলা দিয়ে হাজত খাটিয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে সে তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে। ঘটনার দিন খুব সকালে গুড়ি, গুড়ি বৃষ্টির মধ্যে রুহুল আমিন মসজিদ থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় রাস্তায় লোকজন না থাকায় মাসুদ রানা লোহার রড় দিয়ে রুহুল আমিনের মাথার পেছন আঘাত করে। এসময় রুহুল আমিন রাস্তার উপর লুটিয়ে পড়লে সে পালিয়ে যায়।

পুলিশের কাছে অপরাধ স্বীকারের পর রবিবার বিকেলে মাগুরা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সম্পা বসুর আদালতে ঘটনার বর্ননা দিয়ে মাসুদ রানা এই হত্যার দায় স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

মাগুরা পুলিশ সুপার একেএম এহসান উল্লাহ জানান, পুলিশি তদন্তের মাধ্যমে মামলা দায়েরের মাত্র ৬ ঘন্টার মধ্যে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত মূল আসামিকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়েছে। আর এ ঘটনার কারণে নিহতের স্ত্রী ১৩ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের করলেও নিরাপদ ১২ আসামী হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ থেকে মুক্তি পেলো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo_image
সম্পাদক: জাহিদ রহমান
নির্বাহী সম্পাদক: আবু বাসার আখন্দ
প্রকাশক:: জাহিদুল আলম
যোগাযোগ:
পৌর সুপার মার্কেট ( দ্বিতীয় তলা), এমআর রোড, মাগুরা।
ফোন: ০১৯২১১৬১৬৮৭, ০১৭১৬২৩২৯৬২
ইমেইল: maguraprotidin@gmail.com