প্রথম পাতা » মাগুরা সদর » সন্ত্রাসীদের জন্য নতুন সংকেত: পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত আসামী আজিবর

সন্ত্রাসীদের জন্য নতুন সংকেত: পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত আসামী আজিবর

সন্ত্রাসীদের জন্য নতুন সংকেত: পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত আসামী আজিবর

প্রতিদিন ডেস্ক: আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সহিংসতায় গর্ভস্থ শিশু গুলিবিদ্ধ এবং একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় দায়েকৃত মামলার ৩ নং আসামী মেহেদী হাসান আজিবর ওরফে অজিবর শেখ আজ রাত ১ টার সময় শহরের দোয়ার পাড় এতিমখানা এলাকায় পুলিশের সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত হয়েছে। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার হয়েছে ২ টি আগ্নেয়াস্ত্র। পুলিশ সুপার এহসান উল্লাহ এ খবর নিশ্চিত করেছেন।

মাগুরা পুলিশ সুপার এহসান উল্লাহ জানান, আজিবরসহ একটি সন্ত্রাসী গ্রুপ দোয়াপাড় এতিমখানা এলাকায় অবস্থান করছে এমন খবরের মাগুরা পুলিশের একাধিক টিম তাকে আটক করতে সেখানে অভিযানে যায়। এসময় সন্ত্রাসীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে ছুড়তে পালানোর চেষ্টা করে। এসময় পুলিশ ও পাল্টা গুলি চালায়। পরে ঘটনা স্থলে আজিবর শেখের গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়া যায়। অন্য সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে দুটি আগ্নেযাস্ত্র উদ্ধার করে।

এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় মাগুরা শহরের ব্যাপক গুন্জন ছড়িয়ে পড়ে শালিখা উপজেলার সীমাখালী এলাকা থেকে পুলিশের হাতে আজিবর গ্রেফতার হয়েছে। কিন্তু পুলিশ বাববার বিষয়টি সাংবাদিকদের কাছে অস্বীকার করে। এসময় পুলিশ সুপার জানান, এধরনের কোন গ্রেফতারের ঘটনা ঘটলে সম্পূর্ণ নিশ্চিত হয়ে অবশ্যই মিডিয়াকে জানানো হবে।

গর্ভস্থ শিশু গুলিবিদ্ধ এবং একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আজিবর ৩ নং আসামী হলেও মামলায় বাদী উল্লেখ্য করেছেন আজিবরের আগ্নেয়াস্ত্রের ছোড়া গুলিতে মমিন ভূইয়া নিহত হয়েছেন। এ মামলার প্রধান আসামী জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সেন সুমনের ৭ দিনের রিমান্ড চলছে। বর্তমানে সে মাগুরা ডিবি পুলিশ হেফাজতে রয়েছে। ঢাকার কল্যাণপুর থেকে গত ২ আগস্ট সেন সুমনকে গ্রেফাতার করা হয়। এর আগে মামলার ৫ নং আসামী ও ১২ নং আসামী সোবাহাকে পুলিশ এক দিনের জন্য রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল। এ পর্যন্ত মামলার ১৬ আসামীর মধ্যে ডিবি পুলিশ ৯ আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে। অন্যদিকে আজিবর বন্দুক যুদ্ধে নিহত হওয়ার পর বাকি ২ নং আসামী মোহাম্মদ আলীসহ ৬ জনকে পুলিশ এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, ২৩ জুলাই শহরের দোয়ার পাড় এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ক্ষমতাশীন দলের ছত্রছায়ায় থাকা দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ সময় গুলিতে নিহত হন মমিন ভূইয়া নামে একজন। গর্ভস্থ শিশুসহ গুলিবিদ্ধ হন নাজমা বেগম নামে এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় নিহত মমিনের পুত্র রুবেল ২৬ জুলাই মাগুরা সদর থানায় ১৬ জনের নামে হত্যাসহ বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা দায়ের করেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Logo_image
সম্পাদক: জাহিদ রহমান
নির্বাহী সম্পাদক: আবু বাসার আখন্দ
প্রকাশক:: জাহিদুল আলম
যোগাযোগ:
পৌর সুপার মার্কেট ( দ্বিতীয় তলা), এমআর রোড, মাগুরা।
ফোন: ০১৯২১১৬১৬৮৭, ০১৭১৬২৩২৯৬২
ইমেইল: maguraprotidin@gmail.com