আজ, সোমবার | ২১শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং | রাত ১২:২৩

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের আত্মার শান্তি কামনায় মাগুরায় দোয়া

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের আত্মার শান্তি কামনায় মাগুরায় দোয়া

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : দেশের অন্যতম বৃহত্ শিল্পগ্রুপ যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের আত্মার শান্তি কামনা করে শুক্রবার মাগুরায় শহরের স্টেডিয়াম পাড়া জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে দোয়া পরিচালনা করেন মসজিদের ইমাম মাওলানা মনিরুজ্জামান।

দোয়া মাহফিলে উপস্থিতি মুসল্লিরা দেশের অন্যতম শিল্পোদ্যাক্তা বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম বাবুলের আত্মার শান্তি কামনার পাশাপাশি শোক সন্তপ্ত পরিবারের মঙ্গল কামনা করেন।

১৩ জুলাই সোমবার বিকালে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে (সাবেক অ্যাপোলো) চিকিত্সাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও তিন মেয়েসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

তার মৃত্যুতে দেশের শিল্প খাতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। ব্যবসায়ীরা বলছেন, বড় অসময় চলে গেলেন তিনি। করোনার সংকট কাটিয়ে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও আধুনিক বাংলাদেশ বিনির্মাণে তার মতো উদ্যোক্তার খুবই দরকার ছিল। এ সময় তার চলে যাওয়া দেশের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি।

গত ১৪ জুন নুরুল ইসলামকে এভার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার কিডনি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। বিশিষ্ট এই শিল্পোদ্যোক্তার চিকিত্সায় এভার কেয়ারের ডা. ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) মাহবুদের নেতৃত্ব ১০ সদস্যবিশিষ্ট মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়।

এর বাইরে চীনের ৪ বিশেষজ্ঞ চিকিত্সক এবং সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের দুই বিশেষজ্ঞ চিকিত্সক টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে পরামর্শ দিয়েছেন।

তার স্ত্রী সাবেক মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বর্তমান জাতীয় সংসদের এমপি সালমা ইসলাম। ছেলে শামীম ইসলাম যমুনা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, তার তিন মেয়ে- সোনিয়া ইসলাম, মনিকা ইসলাম এবং রোজালিন ইসলাম যমুনা গ্রুপের পরিচালক।

যমুনা গ্রুপ বাংলাদেশের বৃহত্ শিল্পগ্রুপ। ১৯৭৪ সালে নুরুল ইসলাম যমুনা গ্রুপ প্রতিষ্ঠা করেন। মেধা, দক্ষতা, পরিশ্রম ও সাহসিকতার মাধ্যমে একে একে শিল্প এবং সেবা খাতে গড়ে তোলেন ৪১টি প্রতিষ্ঠান।

তার মৃত্যুতে মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. সাইফুজ্জামান শিখর, মাগুরা-২ আসনের সংসদ সদস্য ডক্টর বিরেন শিকদার, পৌর মেয়র খুরশিদ হায়দার টুটুল, জেলা আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এএফএম আবদুল ফাত্তাহ, মাগুরা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শামিম খান, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আকতার হোসেন, জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. হাসান সিরাজ সুজা, জেলা জাসদ সভাপতি অহিদুল ইসলাম ফনি, সাধারণ সম্পাদক সমীর চক্রবর্তি, জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. রাশেদ মাহমুদ শাহিন, স্বেচ্ছাসেবকলীগ আহ্বায়ক মেহেদি হাসান সালাহউদ্দিন, যুবলীগ আহ্বায়ক ফজলুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মেহেদি হাসান রুবেলসহ জেলার বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শোক জানিয়েছে। এ ছাড়া জেলার অন্যান্য উপজেলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকেও শোক প্রকাশ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে তার আত্মার শান্তি কামনা দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। পাশাপাশি স্থানীয় সাংবাদিকরা শোক র্যালি বের করে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2020
IT & Technical Support : BS Technology