আজ, সোমবার | ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ ইং | রাত ২:২৪

ব্রেকিং নিউজ :
সফল করোনাযোদ্ধা হিসেবে মানবাধিকার পুরস্কার পেলেন শ্রীপুর থানার ওসি সরকারি নিবন্ধনের অনুমোদন পেলো ‘মাগুরা প্রতিদিন ডটকম’ মাগুরায় হামলা-পালটা হামলার ঘটনায় এড. কল্লোলসহ ৪২ জনের নামে মামলা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে ফতোয়াবাজির প্রতিবাদে মাগুরায় স্বেচ্ছাসেবক লীগের মানববন্ধন মুসলিম বিশ্বের দেশে দেশে মসজিদের সামনেই ভাস্কর্য! মাগুরাবাসি আবার পাচ্ছে রেডক্রিসেন্টের চেয়ারম্যান মাগুরায় জেলা কৃষকলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত মাগুরায় এনজিওর পক্ষ থেকে ৩৪৮ জন পরিচ্ছন্নতা কর্মীর মধ্যে খাদ্য সামগ্রি বিতরণ মাগুরায় হাজার ছাড়ালো করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখা মাগুরা প্রতিদিন সহ আরও ৫১ নিউজ পোর্টাল অনুমোদন পাচ্ছে
দলীয় নেতৃবৃন্দের দাবি প্রতিহিংসার শিকার আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক লিটন

দলীয় নেতৃবৃন্দের দাবি প্রতিহিংসার শিকার আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক লিটন

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মাগুরার মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল সিদ্দিকী লিটনের নামে একাধিক মামলা দায়েরের ঘটনাকে রাজনৈতিক চক্রান্ত বলে দাবি করেছে আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মহম্মদপুর উপজেলার বেথুলিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত সভায় এই দাবি জানানো হয়।সভায় উপস্থিত উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দ দলীয় সাধারণ সম্পাদকের নামে দায়েরকৃত ওইসব মামলার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি দাবির পাশাপাশি নিন্দা জানান।

সভা শেষে মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এডভোকেট আবদুল মান্নান উপস্থিতি সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, যে কেউ মামলা করতে পারেন। একজন আসামীও হতে পারে। কিন্তু যে ঘটনার তদন্ত হয়নি এখনও সেই মামলায় পুলিশ প্রশাসন কীভাবে হন্ন হয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক লিটনকে খুঁজছে? এর পেছনের কারণ কি?

তিনি মামলাটিকে একটি মিথ্যা এবং স্থানীয় প্রতিপক্ষের চক্রান্ত বলে দাবি করে বলেন, প্রশাসনকে প্রভাবিত করে স্থানীয় প্রতিপক্ষরা যেমনি করে ব্যক্তি মোস্তফা কামাল সিদ্দিকী লিটনের ক্ষতি করেছে তেমনি আওয়ামীলীগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে।

অনতিবিলম্ব এই মিথ্যা মামলার দায় থেকে আওয়ামীলীগ নেতা লিটনকে অব্যাহিত দিয়ে প্রকৃত দোষি ব্যক্তিদের শাস্তির দাবি করেন।

এডভোকেট মান্নান নহাটা ইউনিয়নের বিএনপি নেতা আকতারুজ্জামানের নাম উল্লেখ করে বলেন, একটি ছেলে এবং একটি মেয়ের অবৈধ সম্পর্কের ঘটনা। অথচ আকতারুজ্জামান রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে মেয়েটির পরিবারকে দিয়ে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন।

তিনি এই ঘটনায় প্রশাসনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ তুলে বলেন, একটি মিথ্যা মামলাকে প্রশাসন সেই আঙ্গিকে দেখছে। নিরপেক্ষ দৃষ্টিতে দেখছে না।

উল্লেখ্য, গত ২০ জুলাই মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক নহাটা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল সিদ্দিকী লিটনসহ ১৬ জনের নামে মহম্মদপুর ‍থানায় একটি চাঁদাবাজি মামলা দায়ের হয়। ওই মামলায় বাদির অভিযোগ, তার অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া মেয়ে পাশের ইউনিয়ন বেরইল পলিতার ভাঙ্গুড়া গ্রামের শহীদুল ইসলামের ছেলে শাহাবুলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। যার জেরে মেয়েটি অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়ে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পর্কের উপস্থিতিতে আকতার শেখের বাড়ির নিকট শালিস বৈঠক হয়। ওই শালিশে তাকে ১ লক্ষ ২৫ হাজার জরিমানা করা হয়। পাশাপাশি জরিমানার অর্থ পরিশোধ না করলে তাকে সমাজচ্যূত করা হবে বলেও সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

মামলায় বাদি আরো উল্লেখ করেন, ভাঙ্গুড়া গ্রামের শাহাবুল তার মেয়েকে ধর্ষণ করায় মেয়েটি অন্ত:সত্ত্বা হয়ে পড়েছে। এ ঘটনার বিচার চেয়ে তিনি মহম্মদপুর থানায় তিনি একটি মামলা দায়ের করেন। যে ঘটনায় ১৬ জুলাই তারিখে পুলিশ শাহাবুল নামে ওই ছেলেটিকে গ্রেফতার করে। এতে আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক লিটনসহ অন্যান্যরা ক্ষুব্ধ হয়ে বাদির বাড়িতে হামলা ও লুটপাট চালায়।

২০ জুলাই দায়েরকৃত মামলার তিন আসামীকে পুলিশ ইতোমধ্যে আটক করেছে। এছাড়া মামলার ১নং অভিযুক্ত আসামী মোস্তফা কামাল সিদ্দিকীকেও আটকের চেষ্টা চালাচ্ছে বলে জানা গেছে।

আওয়ামীলীগ নেতা লিটনকে আটকের চেষ্টার ঘটনায় ক্ষুব্দ মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ বিষয়টিকে রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় প্রতিপক্ষদের গড়ে তোলা চক্রান্ত বলে দাবি করে মিথ্যা মামলার দায় থেকে লিটনকে অব্যাহতির দাবি জানান।

এদিকে ২৩ জুলাই বৃহস্পতিবার মহম্মদপুর থানায় নহাটা ইউনিয়নের পানিঘাটা গ্রামের বাবর আলি নামে এক ব্যক্তি মহম্মদপুর উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক লিটনসহ ১৫ জনকে আসামী করে আরো একটি চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করেছেন। এ মামলায় ২০১৯ সালের ২ জানুয়ারি তার কাছে ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি এবং বাড়ি ভাংচুর সহ নানা অভিযোগ তুলে ধরা হয়েছে।

নতুন করে দেড় বছর আগের তারিখ উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা দায়েরের ঘটনাকে আওয়ামীলীগের বিরুদ্ধে আরো একটি ষড়যন্ত্র বলে দাবি করেছেন বৃহস্পতিবারের সভায় উপস্থিতি আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2020
IT & Technical Support : BS Technology