আজ, সোমবার | ১৪ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | রাত ৮:৫৮


মাগুরার পৌরপার্কটি মানুষের চিত্তবিনোদনের একটি দর্শনীয় স্থান হয়ে উঠবে-এমপি শিখর

মাগুরা প্রতিদিন ডটকম : মাগুরা পৌরসভার বাস্তবায়নাধিন পার্কটি কেবল শিশু পার্ক নয়। এটি এ অঞ্চলের সাধারণ মানুষের চিত্ত বিনোদনের একটি অন্যতম দর্শনীয় স্থান হবে। পার্কের পাশাপাশি একটি পূর্ণাঙ্গ পিকনিক কর্ণার হিসেবে এটিকে গড়ে তোলা হবে বলে জানিয়েছেন মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর।

শনিবার দুপুরে মাগুরা পৌরসভার বাস্তবায়নাধিন পার্কের অগ্রগতি পরিদর্শন কালে সংসদ সদস্য কাজের অগ্রগতি দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশের পাশাপাশি মাগুরাসহ এ অঞ্চলের মানুষের চিত্ত বিনোদন নিশ্চিত করতে নিজের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

পৌর এলাকায় কুমার নদীর উপর পারনান্দুয়ালি-লক্ষীকান্দর অংশে নির্মাণাধিন পার্ক পরিদর্শনকালে সংসদ সদস্য এড. সাইফুজ্জামান শিখরের সাথে মাগুরা জেলা প্রশাসক ডক্টর আশরাফুল আলম, পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোয়ান, জেলা আওয়ামীলীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আফম আবদুল ফাত্তাহ, সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মুন্সী রেজাউল ইসলাম, পৌরমেয়র খুরশিদ হায়দার টুটুল, প্যানেল মেয়র মকবুল হোসেন মাকুল, সংশ্লিষ্ট প্রকল্প প্রকৌশলী মোহাম্মদ হাসনাইনসহ স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

পৌর মেয়র খুরশিদ হায়দার টুটুল বলেন, মাগুরা শহরে পার্ক মার্কেট আছে। কিন্তু পার্ক নেই। দু:খজনক যে, বিগত সময়ে দুইজন পৌর চেয়ারম্যান মাগুরার শিশুদের জন্যে বিদ্যমান পার্কটি বন্ধ করে দিয়েছে। একজন মার্কের সামনে মার্কেট তৈরি করেছেন। আরেকজন তার ভিতরে পানি শাখার অফিস খুলেছেন। কিন্তু মাগুরায় শিশুদের চিত্ত বিনোদনের কথা কেউ ভাবেন নি। পৌর নাগরিক এবং তাদের সন্তানদের সুস্থ্য বিনোদনের বিষয়টি অধিক গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়াও এটি সাধারণ নাগরিকদের দীর্ঘদিনের দাবিও। যে দাবির প্রেক্ষিতেই ইউজি-থ্রি প্রকল্পের অর্থায়নে প্রায় ১৯ কোটি ২০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে মাগুরা পৌরসভার পক্ষ থেকে একটি আধুনিক মানের পার্ক নির্মাণ করা হচ্ছে। সেটি বাস্তবায়নের পথে। ইতোমধ্যেই অনেকখানি কাজ এগিয়ে গেছে। আগামি কয়েকমাসের মধ্যেই কাজটি সম্পন্ন করা সম্ভব হবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

বাস্তবায়নাধিন পার্কের দায়িত্বরত প্রকল্প প্রকৌশলী মোহাম্মদ হাসনাইন বলেন, নির্মাণাধিন পার্কটিতে ৩২ আসনের ১টি হানি সুইং, ২০ আসনের ১টি ম্যারিগোরাউন্ড, ১৬ আসনের প্যারাটোপার, ৩২ আসনের ১টি আন্ডার হুইল, ১২ আসনের ৬টি ইলেকট্রিক বাম্পার কার, ৩ কেবিন এবং ৩০ আসনের মিনি ট্রেন, ১টি মাল্টি সুইং সহ নানা ধরণের রাইড থাকবে।

এ ছাড়া দুটি পিকনিক স্পট, পর্যাপ্ত কার পার্কিং এরিয়া, ফুটপাথ, স্ট্রিট লাইট, ২টি প্লে গ্রাউন্ড, ২টি কটেজ, ২টি ফোয়ারা সহ অত্যাবশ্যকীয় আরও নানা বিষয় সংযোজন করা হবে বলেও তিনি জানান।

মাগুরা জেলা প্রশাসক ডক্টর আশরাফুল আলম মাগুরা পৌর মেয়রের তত্ত্বাবধানে পার্ক স্থাপনের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে প্রয়োজনে পার্কের অধিনে জেলা প্রশাসনের খাস খতিয়ানের আরও যায়গা বরাদ্দ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

পাশাপাশি মাগুরা পুলিশ সুপার খান মোহাম্মদ রেজোয়ান পার্ক ও পিকনিক স্পটের দর্শনার্থিদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের জন্যে প্রয়োজনে এই এলাকায় একটি ক্যাম্প স্থাপনের ঘোষণা দেন।

বাস্তবায়নাধিন পার্কের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে মাগুরা-১ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর বলেন, মাগুরায় সাধারণ মানুষ এবং শিশুদের চিত্তবিনোদনের কোনো জায়গা ছিল না। মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর সহযোগিতায় পৌরসভার মাধ্যমে প্রায় ২ একর ৩০ শতক জমির উপর যে পার্কটি নির্মাণ করা হচ্ছে সেটি একাধারে শিশু পার্ক এবং একটি পূর্ণাঙ্গ পিকনিক স্পট হিসেবে দাঁড়াবে। যেখানে দূর দূরান্তের মানুষেরাও নিয়মিত ভিড় করবে তাদের চিত্ত বিনোদনের জন্যে। পৌর মেয়রের মাধ্যমে কাজটি সুন্দরভাবে এগিয়ে যাচ্ছে। কাজের মান দেখে আমরা খুবই সন্তুষ্ট। আশা করি কাজটি সম্পন্ন হলে এটি এই অঞ্চলের মানুষের অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিতি লাভ করবে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2021
IT & Technical Support : BS Technology