আজ, মঙ্গলবার | ১৫ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | সকাল ১০:২৬


চীনের টিকা উৎপাদনে এগিয়ে ইনসেপ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক : চীনের টিকা এবার উৎপাদন করা হবে বাংলাদেশে। সক্ষমতা যাচাইয়ে এগিয়ে রয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় ঔষধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস্ লিমিটেড।

ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর ( ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন) এর সূত্র থেকে এমন খবর জানা গেছে। উভয় রাষ্ট্র এবং সংশ্লিষ্ট বিভাগের চুক্তি সম্পন্ন হলে ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড দেশেই টিকা উৎপাদনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবে।

সূত্রমতে, ভ্যাকসিন উৎপাদনে সক্ষমতা বিবেচনায় এগিয়ে থাকায় ইনসেপ্টাকে টিকা উৎপাদনের অনুমতি দেয়া হতে পারে। এর আগে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় টিকা উৎপাদনে সক্ষম প্রতিষ্ঠানের সার্বিক সক্ষমতা যাচাই বাছাই করার জন্য একটি কোর কমিটি গঠন করে। সেই কমিটি নম্বরের ভিত্তিতে তিনটি প্রতিষ্ঠানের সক্ষমতা তুলে ধরে। সেক্ষেত্রে ২৫ নম্বরের মধ্যে ইনসেপ্টা মোট ২১ নাম্বার পেয়ে এগিয়ে রয়েছে। অন্য দুটি প্রতিষ্ঠান পপুলার ও হেলথ কেয়ার যথাক্রমে ১২ ও ৫ নম্বর অর্জন করে।

উল্লেখ্য, গত ১৮ মার্চ সাভারের জিরাবোতে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক এমপি সরেজমিনে ইনসেপ্টা ভ্যাকসিন-এর বাল্ক ফ্যাসিলিটি, আর এন্ড ডি ফ্যাসিলিটি, প্রোডাকশন ফ্যাসিলিটি এবং এনিম্যাল হাউস পরিদর্শন করেন। এসময় তার সাথে আরও উপস্থিত ছিলেন ধামরাই আসনের বেনজীর আহমেদ এমপি, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ-এর সচিব, মো. আব্দুল মান্নান, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাহবুবুর রহমান, ইনসেপ্টা ফার্মাসিউটিক্যালসের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুল মুক্তাদির।

উল্লেখ্য, ইনসেপ্টার ১ দশমিক ২ বিলিয়ন বার্ষিক সিঙ্গেল ডোজ ভ্যাকসিন উৎপাদনের সক্ষমতা রয়েছে। ঢাকার সাভার-এ ২০১১ সালের জুন মাসে ইনসেপ্টা ভ্যাকসিন লিমিটেড আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করে।

এখন পর্যন্ত ১৩ ধরনের  ভ্যাকসিন (ইমিউনোগ্লোবিউলিনসহ) যেমন- র‌্যাবিস, র‌্যাবিস -আইজি, হেপাটাইটিস- বি, হেপাটাইটিস-এ, টাইফয়েড, টিটেনাস, টিটেনাস-আইজি, মিজেলস-রুবেলা, এন্টিভেনাম, ফ্লু ও মেনিনজাইটিসসহ বেশ কয়েক ধরনের ভ্যাকসিন অত্যন্ত সফলভাবে উৎপাদন ও বাজারজাত করেছে।

ইনসেপ্টা সারাদেশে নিজস্ব সুগঠিত এবং নিয়ন্ত্রিত কোল্ড চেইন সিস্টেমের মাধ্যমে ফ্যাক্টরী থেকে ডেলিভারি পর্যন্ত ভ্যাকসিন-এর যাবতীয় গুণগত মান নিশ্চিত করে।

শেয়ার করুন...




©All rights reserved Magura Protidin. 2018-2021
IT & Technical Support : BS Technology